SSL (SECURE SOCKETS LAYER) CERTIFICATE কি ? আপনার সাইটে SSL CERTIFICATE ব্যবহার করলে যেসব সুবিধা পাবেন !!

SSL (SECURE SOCKETS LAYER) CERTIFICATE কি ? আপনার সাইটে SSL CERTIFICATE ব্যবহার করলে যেসব সুবিধা পাবেন !!

বর্তমানে আমরা প্রতিনিয়ত অনলাইনে কেনাকাটা ছাড়া ও বিভিন্ন ব্যক্তিগত তথ্য ব্যবহার করে থাকি। কেনাকাটা করার সময় বিভিন্ন ব্যাংকিং তথ্য, পিন কোড, ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড নম্বর ব্যবহার করি। এসব তথ্যগুলো খুবই স্পর্শকাতর, যে কোন সময় এসব তথ্য হ্যাকারা সহজেই হ্যাক করে নিতে পারে। কারন আমরা জানি না আমরা যেসব সাইটে  এসব তথ্য ব্যবহার করছি সেগুলো নিরাপদ কিনা ! সাইট নিরাপদ কিনা সেটা বুঝা খুব সহজ, আমরা এখন  মোটামুটি সবাই আলি এক্সপ্রেস, পেপাল, ইবে, গুগল, ফেসবুক, ইত্যাদি ব্যবহার করি। এগুলো ব্যবহার করার সময় আপনার ব্রাউজার এর এড্রেসবার লক্ষ্য করলে দেখবেন সাইটির নাম  https:// দিয়ে শুরু হয়েছে, আর নরমাল সাইট গুলো  http:// দিয়ে শুরু হয়। এইযে http এটি একটি অনিরাপদ প্রোটোকল, এইটার সাথে যখন ‍S যুক্ত হয় এই  প্রোটোকল এর সাইটি নিরাপদ। এখানে আপনি নিরাপদ, এসব সাইট গুলোতে আপনি আপনার ব্যক্তিগত তথ্য থেকে শুরু করে বিভিন্ন ব্যাংকিং তথ্য, পিন কোড, ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড নম্বর ব্যবহার করতে পারেন। এই  প্রোটোকল বা সাইটে  https:// তখনই আসে যথন ঐ সা্ইটে ‍ SSL (SECURE SOCKETS LAYER) CERTIFICATE  ব্যবহার করা হয়।

আজকে আমি আপনাদের কাছে SSL কি ? ‍ SSL CERTIFICATE এর ধরন এবং একটা সাইটে  SSL CERTIFICATE ব্যবহারে সাইটে কি কি উন্নতি হয় এসব নিয়ে আমার আজকের এই টিউনটি।

 

 

SSL CERTIFICATE কি ?

SSL CERTIFICATE হল একটি সিকিউর লেয়ার যা, যেকোন  সাইটের ব্যবহারকারীর তথ্য থেকে শুরু করে ঐ সাইট এর বিভিন্ন লিংক এনক্রিপ্ট করা করে রাথে, যাতে হ্যাকারা এসব তথ্য খুজে বের করতে না পারে। SSL একটি সা্ইট এর ব্যবহারকারীর লগ ইন নেম, পাসওর্য়াড, পিন কোড, ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড নম্বর নিরাপদে রাখে।

সাধারণত, ব্রাউজার ও ওয়েব সার্ভারের মধ্যে পাঠানো তথ্যে  ব্যবহারকারী টেক্সট-প্লেইন মাধ্যমে পাঠিয়ে  থাকে  । যদি সেসময় কোন হ্যাকার ওয়েব সার্ভারের মধ্যে পাঠানো তথ্যে হ্যাক করতে যায় তখন, SECURE SOCKETS LAYER তাকে বাধা প্রদান করে, হ্যাকার তথ্যে গুলো নিতে পারবে না এবং ধরা পড়ে যাবে।

আরো নির্দিষ্টভাবে বলতে গেলে  SSL একটি নিরাপত্তা প্রোটোকল. প্রোটোকলে কিভাবে লিংক এবং তথ্য উভয় প্রেরিত হচ্ছে, SSL প্রোটোকল,  এনক্রিপশন ভেরিয়েবল দ্বারা তা নির্ধারণ করে থাকে।

SSL CERTIFICATE এর ধরন : 

SSL CERTIFICATE বিভিন্ন ধরন এর হয়ে থাকে  যেমন :

  • Positive SSL.
  • Instant SSL.
  • Domain validation SSL (DV).
  • Organization valid SSL.
  • Extend Validation SSL (EV) .
  • Wild Card SSL certificate .

এখন আসা যাক  SSL গুলোর কাজ ও ব্যবহার নিয়ে  :

  • পজিটিভ SSL দিয়ে শুধুমাত্র আপনার ডোমেইন নাম প্রমাণ করাতে পারবেন। পজিটিভ SSL দাম তুলনামুলক অনেক কম হয়ে থাকে।
  • ইন্সট্যান্ট SSL দিয়ে আপনার ডোমেইন নাম ও ডোমেইন এর মালিক এর তথ্য প্রমান করাতে পারবেন।
  • Domain validation SSL (DV) ও  পজিটিভ SSL  একই কাজ করে, কিন্তু  Domain validation SSL করাতে আপনার ডোমেইন  রেজিষ্টার ইমেল ও ফোন নম্বার দ্বারা ভেরিফাই করাতে হয়।
  • organization valid SSL মাধ্যমে আপনার সংগঠন এর  নাম প্রমাণ করাতে পারবেন।
  • Extend Validation SSL  এর মাধ্যমে আপনার কোম্পানীর ডোমেইন নাম  প্রমাণ করাতে পারবেন। এর সাথে একটি  গ্রিন বার থাকবে, সেখানে কোম্পানীর নাম লেখা থাকবে।
  • Wild Card SSL certificate আপনার ডোমেইন নাম ছাড়াও আপনার ওয়েব সাইটের সব সাব ডোমেইন SSL দিয়ে সিকিউর করতে পারবেন। এতেও  গ্রিন বার থাকবে।

 

SSL CERTIFICATE আছে  এমন ‍ ওয়েব সাইটগুলো বুঝবেন কি করে ? 

SSL CERTIFICATE নিয়ে মোটামুটি অনেক কিছু  জেনে গেছেন। এবার আসা যাক কি করে,  SSL CERTIFICATE আছে  এমন ‍ ওয়েব সাইটগুলো বুঝবেন কি করে তা একটি চিত্র এর মাধ্যমে তুলে ধরার চেষ্টা করলাম :

উপরে উল্লেখকৃত বৈশিষ্ট্যগুলো একটি SSL CERTIFICATE প্রাপ্ত ওয়েব সাইটে থাকবে। এতে সহজেই বুঝতে পারবেন ওয়েব সাইটি বিশ্বাসযোগ্য ও নিরাপদ।

 

ওয়েব সাইটে  SSL CERTIFICATE ব্যবহার করে  কি লাভ ?

এখন আসা যাক ওয়েব সাইটে  SSL CERTIFICATE ব্যবহার করে  কি হবে ? এতে লাভ কি ?। এতে যদি ব্যবহার করে যদি লাভই না হতো তাহলে, google  , yahoo, facebook, bing, wordpress, aliexpress, ebay, digital point  এছাড়া আরও অনেক জনপ্রিয় ব্লগ, সাইট,  SSL CERTIFICATE ব্যবহার করত না !!

ব্যবহার করে  আপনার  লাভ – 

  • আপনার সাইট এর তথ্য এনক্রিপ্ট করে রাখে।
  • তথ্য চুরি না হওয়ার নিরাপত্তা দেয়।
  • ওয়েব সাইট দিয়ে পেমেন্ট নিতে পারবেন।
  • পিশিং মেইল বিরুদ্ধে কাজ করে।
  • আপনার ব্র্যান্ড নামকে ভেলিডিটি দিয়ে থাকে।
  • গুগল আপনার ‍সাইটকে র‌্যাংকিং করার সময় আলাদা বেশি ভ্যালু প্রদান করবে।
  • আপনার সাইট ব্যবহারকারীর নিকট বিশ্বাসযোগ্য করবে তুলবে।
  • আপনার সাইট SSL CERTIFICATE খাকা কালীন হ্যাক হলে  , কোম্পানী ক্ষতিপুরন দিয়ে  খাকে।

বিভিন্ন ধরনের SSL CERTIFICATE দাম ও কমপেয়ার করতে ঘুরে আসতে পারেন এ সােটে । আর একটাই কথা বলব, নিরাপদ সাইট গুলো ব্যবহার করুন, পেমেন্ট করুন। এতে আপনার সব তথ্য নিরাপদ থাকবে।

বিভিন্ন ধরনের SSL CERTIFICATE দাম ও কমপেয়ার করতে ঘুরে আসতে পারেন এখানে । আর একটাই কথা বলব, নিরাপদ সাইট গুলো ব্যবহার করুন, পেমেন্ট করুন। এতে আপনার সব তথ্য নিরাপদ থাকবে।

আর যদি এর অসুবিধা, খারাপ দিক খুুজতে যান একটাই দিক ই পা্বেন সেটা হলো এর প্রাইজ মানে দাম একটু বেশি ..  😀

 

বর্তমানে SSL CERTIFICATE এর  জনপ্রিয়  যেসব  ব্র্যান্ড  , মানুষ  তাদের সাইটে ব্যবহার করে  

  • COMODO 
  • GEO TRUST
  • RAPID SSL
  • THAWTE
  • SYMANTEC
About the Author

Leave a Reply